মধ্যপ্রাচ্যের প্রথম মন্দির নির্মাণ হচ্ছে আবুধাবিতে

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম দেশ সংযুক্ত আর প্রথমবারের মতো হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের জন্য মন্দিরের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। গত শনিবার সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ভারতের সরকারি কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে মন্দিরটির নির্মাণকাজ শুরু হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আবুধাবিতে এদিন বিশেষ পূজার আয়োজন করা হয়। ভারত থেকে আগত পুরোহিতদের মাধ্যমে সম্পন্ন করা এ পূজা পাঠ ভোরে শুরু হয়ে বেলা ১১টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত চলে। যেখানে আরব আমিরাতের উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠানে ভারত ও অন্যান্য দেশ থেকে আগত প্রায় আড়াই হাজার হিন্দু ধর্মাবলম্বী অংশ নেন। শীতাতপনিয়ন্ত্রিত বিশাল প্যান্ডেলজুড়ে অনুষ্ঠিত হয় আবুধাবির প্রথম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠান। শ্রী অক্ষর পুরুষোত্তম স্বামীনারায়ণ সংস্থার আধ্যাত্মিক নেতা স্বামী মহারাজ শিলানিয়াসের সভাপতিত্বে ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠানে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সম্পর্ক উন্নয়নের বিভাগের প্রধান ডা. মুগির আলি খলিলি, পরিবেশমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন। তাছাড়া দেশটির বিভিন্ন সরকারি ও ভারতীয় দূতাবাসের পদস্থ কর্মকর্তারাও অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট শেখ খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের জন্য উপহার হিসেবে মন্দিরের জায়গা দিয়েছেন। ১৩.৫ একর (৫৫ হাজার বর্গমিটার) জায়গাজুড়ে এ মন্দির নির্মিত হচ্ছে। মন্দিরের পাশে গাড়ি পার্কিংয়ের জন্যও বিশাল পার্কিং লট রয়েছে। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবিতে প্রথম হিন্দু মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।এ মন্দিরটির অবস্থান দুবাই-আবুধাবি হাইওয়ের কাছে আবু মুরেইখাহ অঞ্চলে। এর আগে ২০১৫ সালে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মোদির প্রথম সফরেই আবুধাবিতে এই মন্দির তৈরির জন্য ২০ হাজার স্কোয়ার মিটার জমি দেওয়ার কথা ঘোষণা দিয়েছিল আমিরাত সরকার। ২০২০ সালের মধ্যে পূর্ণ মন্দিরটি নির্মিত হওয়ার কথা রয়েছে।

পাঠকের মতামত