ভারতের টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের জাহানারা

নারী ক্রিকেটের প্রচার ও প্রসারের জন্য গতবছর থেকে আইপিএল চলাকালীন নারীদের নিয়ে ‘টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জ’ নামক টুর্নামেন্ট আয়োজন শুরু করেছে ভারতের ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা বিসিসিআই। সে ধারাবাহিকতায় চলতি আসরের মাঝেও তিনটি দলকে নিয়ে হবে ‘উইম্যান টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জ’। তিন দলের এ টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে বিদেশী কোটায় দল পেয়েছেন বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দলের তারকা পেসার জাহানারা আলম। যা নিশ্চিত করেছে আয়োজক সংস্থা বিসিসিআই।

তিন দলে ১৩ জন করে ক্রিকেটার নিয়ে গড়া হয়েছে স্কোয়াড। যেখানে প্রতি দলে বিদেশী ক্রিকেটার রয়েছেন মাত্র ৪ জন করে। অর্থাৎ পুরো টুর্নামেন্টে বিদেশীর সংখ্যা মাত্র ১২ জন। আর এ ১২ জনের মধ্যেই একজন বাংলাদেশি জাহানারা। ভারতের কিংবদন্তী নারী ক্রিকেটার মিথালি রাজের নেতৃত্বাধীন ‘টিম ভেলোসিটি’তে খেলবেন জাহানারা। টুর্নামেন্টের অন্য দুই দল হলো স্মৃতি মান্ধানার নেতৃত্বাধীন ট্রেইলব্লেজার্স এবং হারমানপ্রিত কৌরের নেতৃত্বাধীন সুপারনোভাস। গত আসরে দুই দলের অংশগ্রহণে অনেকটা প্রীতি ম্যাচের মতো করে সংক্ষিপ্ত আকারে হয়েছিল এ ‘উইম্যান টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জ’। তবে সাড়া মিলেছিল বেশ। তাই এবার তিন দল নিয়ে রীতিমতো টুর্নামেন্টের আকারেই আয়োজন করা হবে এটি।

চলতি আইপিএলের প্লে-অফ সপ্তাহে জয়পুরের মানসিং স্টেডিয়ামে হবে চার ম্যাচের এ টুর্নামেন্ট। অংশগ্রহণকারী তিন দল একে অপরের বিপক্ষে খেলবে একটি করে ম্যাচ। শীর্ষ দুই দলকে নিয়ে হবে ফাইনাল ম্যাচ। এরই মধ্যে টুর্নামেন্টের সূচিও ঠিক করে ফেলেছে বিসিসিআই। আগামী ৬ মে মানসিং স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে সুপারনোভাস এবং ট্রেইলব্ল্যাজার্স। জাহানারার দল ভেলোসিটির দুই ম্যাচ ৮ এবং ৯ মে। ফাইনাল ম্যাচটি মাঠে গড়াবে ১১ মে। বাংলাদেশের হয়ে এখন পর্যন্ত ওয়ানডেতে ৩০ ও টি-টোয়েন্টিতে ৩৯ উইকেট নিয়েছেন জাহানারা। অনেক দিন থেকেই তিনি দলের সেরা পেসার। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের হয়ে প্রথমবার ৫ উইকেট শিকারের কীর্তিও গড়েছিলেন তিনি।

পাঠকের মতামত