১৬ নারীসহ নির্যাতিত ১৮০ শ্রমিক দেশে ফিরলেন

দেশে ফিরেছেন বিদেশে প্রতারণা ও নির্যাতনের শিকার ১৮০ শ্রমিক। বৃহস্পতিবার কয়েকটি ফ্লাইটে দেশে ফেরেন তারা। এদের মধ্যে ১৬ জন নারীকর্মী রয়েছে। বিমানবন্দর ইমিগ্রেশন সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। জানা যায়, ফেরত আসা শ্রমিকদের মধ্যে ওমান থেকে ১০৬ জন, কাতার থেকে ২৯ জন, মালদ্বীপ থেকে ১০ জন, সংযুক্ত আরব-আমিরাত থেকে ৫ জন, আলজেরিয়া থেকে ৩ জন, ফ্রান্স থেকে ১ জন, অন্যান্য আরও কয়েকটি দেশ থেকে ১০ জনসহ ১৬৪ জন পুরুষকর্মী ও সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ৯ জন, ওমান থেকে ৫ জন এবং লেবানন থেকে ২ জন নারীকর্মী ফেরত এসেছেন।

বিমানবন্দরের প্রবাসীকল্যাণ ডেস্কের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ফিরে আসা কর্মীরা জানান, নিয়োগকর্তা কর্তৃক নির্যাতন, বেতন না দেয়া, কাজ না পাওয়া এবং বৈধ কাগজ থাকা সত্ত্বেও জোর করে তাদের দেশে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদের ধরে শূন্য হাতেই দেশে পাঠিয়ে দিয়েছে। ফিরে আসা এসব কর্মীদের বিমানবন্দরে জরুরি সেবা দিয়েছে ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম। সংস্থাটির প্রোগ্রাম হেড শরিফুল হাসান বলেন, আমাদের অনেক অভিবাসী কর্মী খালি হাতে দেশে ফিরে আসছে প্রতিনিয়ত।

ফিরে আসার পর তাদের পাশে কেউ দাঁড়ায় না। একমাত্র ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম প্রতিবার এগিয়ে আসে তাদের সাহায্যে। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত আমরা আড়াই হাজার জনকে জরুরি সহায়তা দিয়েছি। আমাদের এই কাজের পাশে সবসময় এয়ারপোর্ট এপিবিএন, প্রবাসীকল্যাণ ডেস্ক, ইমিগ্রেশন বিভাগকে পেয়েছি। তারা সবসময় আমাদের সাধুবাদ জানায় এই কাজের জন্য।

পাঠকের মতামত