অপুর্ব বলেন ‘সেটি তাদের একটি অজুহাত’

এখন প্রায় সব মানুষের হাতে স্মার্ট ফোন আছে। ইন্টারনেট ব্যবহারও অনেক সহজ হয়ে গেছে। যে কেউ ইউটিউবে নিজের পছন্দের নাটক-ফিল্ম দেখতে পাচ্ছে। আমাদের নাটকের দর্শক এখন ইউটিউবে বেশি। নাটকের দর্শক নিয়ে এভাবে মন্তব্য করলেন জনপ্রিয় অভিনেতা অপূর্ব। তিনি আরো বলেন, আমার অভিনীত অনেক নাটক টেলিভিশনের চেয়ে ইউটিউবে প্রকাশের পর দর্শকের ভালো সাড়া পেয়েছি। গতকাল ইউটিউবে সিনেমাওয়ালা চ্যানেলে প্রকাশ হয় অপূর্বর ‘প্লেবয়’ শিরোনামের একটি নাটক। এটিতে তার সঙ্গে জুটি বাঁধেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী মেহজাবিন।

নির্মাণ করেছেন মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ। এটি প্রসঙ্গে অপূর্ব বলেন, নাটকটির মধ্যে দর্শকের জন্য ভালো একটি মেসেজ আছে। গল্পটিও ব্যতিক্রম। নাটকটিতে আরো অভিনয় করেছেন সারিকা সাবা, নীলাঞ্জনা নীল, পূজা, মিলি বাশার প্রমুখ। এই অভিনেতা বর্তমানে ঈদের নাটকে ব্যস্ত সময় পার করছেন বলে জানান। ব্যস্ততা প্রসঙ্গে ‘বড় ছেলে’খ্যাত এই অভিনেতা বলেন, আমি ছুটি পাই না। ইচ্ছে করলেও নিজের জন্য একটা দিন বের করতে পারি না। মাসের ত্রিশ দিনই আমাকে ক্যামেরার সামনে থাকতে হচ্ছে। শুটিং করতে হচ্ছে। টেলিভিশন নাটকে গেল কয়েক বছর বাজেট সংকট রয়েছে বলে নির্মাতাদের অভিযোগ। এরমধ্যে আরো একটি বিষয় যোগ হয়েছে শিল্পীদের অধিক সম্মানী।

খণ্ড নাটকের সিংহভাগ বাজেট নায়ক-নায়িকার কাছে চলে যায় বলে অনেকে বলেন। ফলে নির্মাতাদের ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও বাবা-মা চরিত্রগুলোসহ অনেক চরিত্রকে বাদ দিতে হয়। এটিকে অপূর্ব কীভাবে দেখছেন? এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, যারা শিল্পীদের সম্মানি নিয়ে এমন মন্তব্য করেন সেটি তাদের একটা অজুহাত। আমি মনে করি প্রত্যেক শিল্পী তাদের যোগ্যতানুযায়ী সম্মানী নিচ্ছেন। কেউ তো নির্মাতাদের সঙ্গে জোর করছে না। বাজেট সংকটের যে বিষয়টি সেটি চ্যানেল কর্তৃপক্ষদের সঙ্গে টিভি নাটকের প্রডিউসার ও পরিচালক সংগঠনের সকলে বসতে পারেন। তবে এটিও সত্যি, এই সময়ে আমাদের শিহাব শাহিন, মিজানুর রহমান আরিয়ানসহ এমন অনেক নির্মাতা আছেন যারা ভালো বাজেট নিয়ে কাজ করছেন।

একজন নির্মাতাকে চ্যানেল কিংবা স্পন্সর প্রতিষ্ঠান থেকে ভালো বাজেট নিতে হলে তাকেও আগে সেই যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। একজন নতুন নির্মাতা শুরুতেই যদি চ্যানেলের কাছে অনেকে বাজেট চেয়ে বসে সেটি তারা কেন দেবে? আমিও একটা সময় নতুন ছিলাম। অল্প সম্মানিতে কাজ করেছি। ‘গ্যাংস্টার রিটার্ন’ ছবির মধ্য দিয়ে বড় পর্দায় অভিষেক হয় অপূর্বর। কিন্তু এই সময়ে তার হাতে নেই কোনো চলচ্চিত্র। টিভি নাটকেই নিয়মিত অভিনয় করছেন। চলচ্চিত্রে অভিনয় না করার কারণ কি? অপূর্ব বলেন, দর্শকদের দেখানোর মতো যদি কিছু না থাকে সেটিতে অভিনয় না করাই ভালো। আমি টিভিতে অনেক সুন্দর সুন্দর ও বৈচিত্র্যময় চরিত্রে অভিনয় করেছি।

এই চরিত্রগুলো ওভার করার মতো কোনো গল্প ও চরিত্র ফিল্মে পাচ্ছি না। যদি এমনটা পেয়ে যাই তবে অবশ্যই কাজ করবো। সাম্প্রতিক সময়ে অপূর্বর সঙ্গে তার ছেলে আয়াশকেও অভিনয়ে দেখা গেছে। ছেলেকে নিয়ে অপূর্বর পরিকল্পনা কি? উত্তরে এ অভিনেতা বলেন, দর্শক আয়াশের অভিনয় পছন্দ করেছেন এটি আনন্দের। বাকিটা সময় বলে দেবে।

পাঠকের মতামত