যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে হত্যা, স্বামীর ফাঁসির আদেশ

ঝিনাইদহে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী সুরুজ আলীর ফাঁসির রায় দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) বিকালে ঝিনাইদহের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক চাঁদ মোহাম্মদ আব্দুল আলিম আল রাজি এ রায় প্রদাণ করেন। দণ্ডিত সুরুজ আলী হরিনাকুন্ডু উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের বরকত আলীর ছেলে। স্ত্রী চম্পা খাতুনকে হত্যা আদালতে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে এই দণ্ড দেওয়া হয়।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০৩ সালের ২৯ ডিসেম্বর তারিখে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী চম্পা খাতুনকে হত্যার পর আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করে স্বামী সরুজ ও তার পরিবার। পুলিশ চম্পার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত করে হত্যার প্রমাণ পায়। ২০০৪ সালের ২১ মার্চ হরিনাকুন্ডু থানায় ৪ জনকে আসামি করে চম্পার ভাই ইদ্রিস আলী একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আদালত সাক্ষ্য প্রমানের ভিত্তিত্বে আসামি সুরুজ আলীকে মৃত্যুদণ্ড প্রদান করেন।

পাঠকের মতামত