না ফেরার দেশে চলে গেলেন কৌতুক অভিনেতা আনিস

কমেডিয়ান আনিস রোববার (২৮ এপ্রিল) দিবাগত রাত সাড়ে ১১টায় টিকাটুলীর নিজ বাসায় মারা যান (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর। সোমবার (২৯ এপ্রিল) সকাল ৯টায় টিকাটুলী জামে মসজিদে আর নামাজা জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর তার মরদেহ নিয়ে যাওয়ার হবে ফেনীর ছাগলনাইয়া থানার বল্লবপুর গ্রামে। সেখানে বাদ আসর তাকে সমাহিত করা হবে।
অভিনেতা আনিসের জামাতা মোহাম্মদ আলাউদ্দিন শিমুল জানান, উনি সুস্থ ছিলেন। রাতে নামাজ পড়ে ঘুমাতে গিয়েছিলেন। ওখানেই তার স্ট্রোক হয়।

তার মেয়ের জামাতা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অনেককেই ফোন দিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু কাউকেই ফোনে পাননি । এফডিসি প্রাঙ্গনে এই বিশিষ্ট অভিনেতার একটা জানাজা হবে কি না, তা জানতে। বা শেষ বারের মতো এফডিসিতে আনা হবে কী না তা তারা জানেন না। তিনি চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট নেতৃবৃন্দদের সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছেন বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, ১৯৬০ সালে ‘বিষকন্যা’ ছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে কৌতুক অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন আনিস। কিন্তু ছবিটি মুক্তি পায়নি। ১৯৬৩ সালে মুক্তি পায় আনিস অভিনীত প্রথম ছবি জিল্লুর রহমান পরিচালিত ‘এই তো জীবন’। তারপর থেকে তিনি অভিনয় করেই গেছেন। বাংলাদেশ টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে তিনি অভিনয় করছেন। নবাব সিরাজদ্দৌলা নাটকে গোলাম হোসেন চরিত্রে অভিনয় করে তিনি মঞ্চে ব্যাপক খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। আড়াই শতাধিক ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি।

পাঠকের মতামত