মিলার পক্ষ নিয়ে নওশীন ও হিল্লোলকে ধুয়ে দিলেন তিন্নি (ভিডিও)

গত বুধবার বিকেলে সাবেক স্বামী পারভেজ সানজারি, তার পরিবার এবং ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে ন্যায় বিচারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেন সঙ্গীতশিল্পী মিলা। সংবাদ সম্মেলনে মিলা জানান, সানজারির সঙ্গে অনেক মেয়ের অবৈধ সম্পর্ক ছিল। অভিনেত্রী নওশীন নাহরিন মৌ-এর সঙ্গেও ছিল তার অনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে। বিষয়টি জানতে পেরে তিনি ফোনও করেন নওশীনকে। সংবাদ সম্মেলনে সেই ফোন রেকর্ড সাংবাদিকদের শোনান মিলা।

মিলা আরও বলেন, ‘সানজারি ছাড়া পাওয়ার পর আমি যখন পুনরায় সংসার চালিয়ে যাওয়ার জন্য চেষ্টা করছিলাম, তখন তার পরিবারের সসস্যরা আমার নামে বাজে কথা ছড়িয়ে নিজেদের অসহায় হিসেবে উপস্থাপন করছিলো। অথচ ভেতরে ভেতরে নওশীনের সঙ্গে এসব করে বেড়াচ্ছিলো সানজারি। একটা ছেলে কতটা খারাপ হতে পারে, একটা পরিবার কতটা খারাপ হতে পারে, তাদেরকে না দেখলে বুঝতাম না।’
সংবাদ সম্মেলনে মিলা আরও বলেন, ‘নওশীন ও পারভেজ সানজারির কথোপকথনের কিছু রেকর্ড আমার হাতে আসে।

এমন কিছু ছবিও দেখি, যা মুখে প্রকাশ করার মতো না। বিষয়টি দেখে, আমি নওশীনকে ফোন করি। তাকে অনুরোধও করেছি, কিন্তু সে আমার কোনো কথাই শোনেনি।’ নওশীন-মিলার এই ঘটনা নিয়ে সম্প্রতি সময়ে একটি গনমাধ্যমকে সাক্ষাতকার দিয়েছেন নওশীনের বর্তমান স্বামী অভিনেতা আদনান ফারুক হিল্লোলের সাবেক স্ত্রী শ্রাবস্তী দত্ত তিন্নি। তিন্নি ২০০৬ সালের ২৮ ডিসেম্বর অভিনেতা আদনান ফারুক হিল্লোলকে বিয়ে করেন। দাম্পত্য কলহের জের ধরেই ২০০৯ সালের শেষের দিকে তিন্নি-হিল্লোল আলাদা থাকতে শুরু করেন।

তার বেশ ক’বছর পর তাদের বিচ্ছেদের খবর প্রকাশ হয়। এরপর ২০১৪ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি আদনান হুদা সাদকে বিয়ে করেন তিন্নি। ২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে প্রকাশ হয় তিন্নির দ্বিতীয় বিয়ের কথা। এ সংসারও তার সুখের হয়নি। বিচ্ছেদে জড়ান তিনি। এরপর দেশ ছেড়ে কানাডায় চলে যান এই অভিনেত্রী। সেখান থেকেই একটি দেশিয় গনমাধ্যমে সাক্ষাতকারে তিন্নি জানান, মিলার সঙ্গে সাম্প্রতিক সময়ে ঘটে যাওয়া ঘটনায় তিনি এই সংগীতশিল্পীর পাশে আছেন। এছাড়াও নওশীন-হিল্লোল ও মিলার প্রাঙ্গন স্বামী পারভেজ সানজারীকে নিয়েকেও বেশ কিছু কথা বলেন এই অভিনেত্রী।

পাঠকের মতামত