মুন্সীগঞ্জের মেঘনায় ট্রলারডুবির ষষ্ঠ দিনে পাওয়া গেল লাশ

মুন্সীগঞ্জের মেঘনায় ট্রলারডুবির ৬ দিনের মাথায় একটি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার সকালে দুর্ঘটনাস্থলের ৩ কিলোমিটার দূরে গজারিয়া লঞ্চঘাটের কাছে একজন পুরুষের লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশটি ফুলে যাওয়ায় এটি শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।

এ তথ্য নিশ্চিত করে ন পুলিশের এমপি হুমায়ূন কবির জানান, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সকালে লাশটি গজারিয়া লঞ্চঘাট এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে। তবে শনিবার রাতে স্বজনরা বাড়ি ফিরে যাওয়ায় লাশটি এখন শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে তারা আসলে লাশটির শনাক্ত করা সম্ভব হবে। তবে লাশটির দেখে ধারণা করা হচ্ছে এটি ট্রলারডুবির শ্রমিকের লাশ হতে পারে।

এদিকে মুন্সীগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর-গজারিয়া) আশফাকুজ্জামান জানিয়েছেন, ৫ দিনের মতো উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রয়েছে। চাঁদপুরের যাটনলের কাছে মেঘনায় নৌবাহিনী, বিআইডাব্লিউটিএ, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যাবহার করে ট্রলারটির সন্ধান করছে।

উল্লেখ্য, গত সোমবার রাতে মুন্সীগঞ্জের সদরের চরঝাপটা এলাকার মেঘনা নদীতে একটি মাটিকাটা ট্রলারকে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি তেলবাহী ট্যাংকার ধাক্কা দিলে ট্রলারটি মেঘনায় ডুবে যায়। এ সময় ট্রলারটিতে ৩৪ জন শ্রমিক ছিল। ১৪ জন সাঁতার কেটে তীরে উঠতে সক্ষম হলেও নিখোঁজ হয় ২০ শ্রমিক।

পাঠকের মতামত