প্রবাসী বাংলাদেশি ফ্রান্সে সন্ত্রাসী আক্রমণের শিকার

ফ্রান্সে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি আতিকুর রহমান সালাম সম্প্রতি সন্ত্রাসী আক্রমণের শিকার হয়েছেন।

তিনি জানান, ১৬ বছর ধরে ফ্রান্সে বসবাস করছি, কখনোই এমন পরিস্থিতিতে পড়িনি। ৪ বছর আগে সরকারি বাসার জন্য অ্যাপ্লাই করেছিলাম, সেন দুনিতে আমায় একটি সরকারি বাসা দেয়া হয়।

ভাগ্যের নির্মম পরিহাস বাসা পাল্টানোর দিন বাসার নিচ থেকে আমার ফ্রীজ চুরি করে নিয়ে যায়, আমি ভেবেছিলাম হয়তো ময়লার গাড়ী এসে নিয়ে গিয়েছে।
তাই নর্মাল ভাবেই বাসায় উঠেছিলাম, কিন্ত এলাকাটা মোটেই স্বাভাবিক ছিলো না। পরের দিন ঘটলো খারাপ ঘটনা, আমার বন্ধু এসেছিল আমার সঙ্গে দেখা করতে। ১৬ থেকে ১৮ বছরের কিছু ছেলে তাকে আমার বাসার নিচে ধরে গলায় চাপ দিয়ে অচেতন করে তার সব কিছু ছিনতাই করে নিয়ে যায়।

তারা ছিনতাই করেই খান্ত হয়নি, আমার বাসায় এসে আমার বন্ধুর কাছে তার ক্রেডিট কার্ডের পিনকোড চায়, আর বলে যায় যেন থানা পুলিশ না করি কিন্ত আমি পরের দিন থানায় গিয়ে সাধারণ ডাইরি করে আসি, তার পরেই আমার উপর বিপদ নেমে আসে।

পরের দিন সন্ধ্যা বেলায় আমি কাজ শেষ করে আমার সেই বন্ধুর সঙ্গে বাজার করে বাসায় ফিরছিলাম, আমাদের দেখে ওরা প্রাই ১০ থেকে ১৫ জনের একটা দল আমাদের উপর হামলা চালায়।

আমার বন্ধু নিজেকে রক্ষা করতে পারলেও আমি, তাদের হাতে আটকা পরে যাই। আমার নাক এবং কপাল ফেটে যায়, মাথায় আঘাত করা হয়।

সব থেকে কষ্ট লাগে যখন পুলিশ আমাকে কোন সহায়তা করে না, উল্টো আমাকে বলে একাএকা বাসায় চলে যেতে।

আবার যদি ওরা আসে যেন ১৭ তে ফোন করি, ১৭ তে ফোন দিলে পুলিশ আসার কথা, কিন্ত ওই এলাকার নাম শুনলে কেও আসে না। বাধ্য হয়ে সরকারি বাসা ফেলে আসতে হয় আমাকে।

পাঠকের মতামত