যে সমীকরণে দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে পারবে মাহমুদুল্লাহর খুলনা

বিপিএল পয়েন্ট তালিকায় –৭ ম্যাচে ১২ পয়েন্টে সবার শীর্ষে চিটাগাং ভাইকিংস ! ৮ ম্যাচে ১০ পয়েন্টে দ্বিতীয় অবস্থানে ঢাকা ডাইনামাইটস !

৮ ম্যাচে ১০ পয়েন্টে তৃতীয় অবস্থানে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ৮ ম্যাচে ৮ পয়েন্টে চতুর্থ অবস্থানে রংপুর রাইডারস।

৮ ম্যাচে ৮ পয়েন্টে পঞ্চম অবস্থানে রাজশাহী কিংস। ৯ ম্যাচে ৪ পয়েন্টে ষষ্ঠ অবস্থানে খুলনা টাইটান্স। ৮ ম্যাচে ৪ পয়েন্টে সপ্তম অবস্থানে সিলেট সিক্সারস।

চিটাগাং ভাইকিংসের প্লে অফ একপ্রকার নিশ্চিত, প্লে অফে যাওয়ার কাছাকাছি অবস্থানে আছে ঢাকা এবং কুমিল্লাও। শংকায় আছে রংপুর ও রাজশাহী। প্লে অফে যযাওয়ার বেশ সম্ভাবনা আছে সিলেটের এবং কিছুটা সম্ভাবনা আছে খুলনার।

সিলেটের বাকি চারটি ম্যাচে জয় পায়, তাহলে মোট পয়েন্ট হবে ১২, অপরদিকে সব ম্যাচে হারতে হবে রংপুর রাইডারস ও রাজশাহী কিংসের। এরমধ্যে এক ম্যাচে মুখোমুখি হবে রংপুর – রাজশাহী, তাদের মধ্যে কেউ জিতলেও একদলের পয়েন্ট হবে ১০। তারপরেও চার ম্যাচ জিতলে ১২ পয়েন্টের সুবাদে সিলেট এগিয়ে যাবে।

বাকি ম্যাচগুলোতে যদি জয় পায় খুলনা টাইটান্স, তাহলে খুলনার পয়েন্ট হবে ১০, অপরদিকে যদি রংপুর ও রাজশাহীর মধ্যকার ম্যাচে কেউ জয় পেলে তাদের যেকোনো একদলের পয়েন্ট হবে ১০। তারপর নেট রান রেটের হিসেবে যে এগিয়ে থাকবে সেই প্লে অফে যাবে। কোনো ম্যাচই হারা যাবেনা খুলনার এবং নেট রান রেটও ভালো রাখতে হবে। কারন নিজেরা সব ম্যাচ জিতলেও সিলেট বা রংপুর বা রাজশাহীর সাথে রান রেটের হিসেবে পড়তে হতে পারে।

সবকিছু মিলিয়ে খুলনার অবস্থা অনেক যদি-কিন্তুর উপরে নির্ভর করে, কিন্তু সম্ভাবনা ফেলে দেয়া যায়না।

ফ্রেঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে টানা চার ম্যাচে হার বা টানা তিন/চার ম্যাচে জয়ের অনেক রেকর্ড আছে, তাই শংকা আছে রংপুর – রাজশাহী ও সম্ভাবনা আছে সিলেট ও খুলনার !

দেখাযাক, বিপিএলে এমন কিছু ঘটে কিনা। যাইহোক অগ্রিম খুশি হওয়ার কারন নেই রংপুর ও রাজশাহী সমর্থকদের। এখনি একেবারে নিরাশ হওয়ার কারন নেই সিলেট ও খুলনা সমর্থকদের।

পাঠকের মতামত