৬ তরুণী রোহিঙ্গাসহ আবাসিক হোটেল থেকে আটক ৭

বেনাপোলে আবাসিক হোটেল ‘সান সিটি’ থেকে ভারতে পাচারের সময় আজ বুধবার দুপুরে কক্সবাজার থেকে আসা ৬ যুবতীসহ এক পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ভুয়া পাসপোর্টও জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত রোহিঙ্গারা হলেন, আজিজা তাহারা (১৭), হাফিজা খাতুন (১৮), শরিফা (১৯), মনজিদা খাতুন (১৫), সখিনা আক্তার (১৫), ইয়াসমিন আক্তার (১৮) এবং পাচারকারী মঞ্জুর আহম্মেদ (৩৯)। রোহিঙ্গা নারীদের বাড়ি মিয়ানমারে। তারা কক্সবাজারের টেকনাফ রোহিঙ্গা শিবিরে ছিলেন। আটক পাচারকারী মঞ্জুর আহম্মেদের বাড়ি চাঁদপুর জেলায়।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, ভারতে পাচারের উদ্দেশ্যে বেনাপোল বাজারের আবাসিক হোটেল ‘সান সিটি’তে একদল রোহিঙ্গা অবস্থান করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বেনাপোল পোর্ট থানার এসআই লতিফের নেতৃত্ব সেখানে অভিযান চালিয়ে ছয় রোহিঙ্গা যুবতীসহ এক জন পাচারকারীকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। যুবতীদের কক্সবাজার রোহিংগা ক্যাম্প থেকে ভারতে পচারের জন্য বেনাপেলে আনা হয়।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আবু সালেহ মো. মাসুদ করিম জানান, পাচারকারী মঞ্জুর আহম্মেদ তাদেরকে ভুয়া পাসপোর্টের মাধ্যমে ভারতে পাচার করার উদ্দেশে বেনাপোলের হোটেল ‘সান সিটি’তে অবস্থান করছিল। খবর পেয়ে তাদের আটক করে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তাদেরকে পাসপোর্ট জালিয়াতি আইনে মামলা দিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে আজ বিকেলে।

পাঠকের মতামত